দেশ

দেশ

র‌্যাবের পৃথক অভিযানে ডাকাতসহ গ্রেফতার ১২

আইন শৃংখলা রক্ষায় অপরাধীদের গ্রেফতারে সারাদেশে র‌্যাবের অভিযান জোরদার করা হয়েছে। এর ফলে পৃথক অভিযানে ৮ জন ডাকাত এবং ৪ জন ছিনতাইকারী গ্রেফতার করা হয়েছে বলে র‌্যাব-১০ এর মিডিয়া সেল থেকে জানানো হয়েছে।

অভিযান-১:
ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ এলাকা হতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ আন্তঃজেলা ডাকাত চক্রের মূলহোতাসহ ডাকাত দলের সাত জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ ।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি রাতে র‌্যাব-১০ এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা জেলার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানাধীন আব্দুল্লাহ্পুর এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাত দলের সাত সদস্যকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের নাম ১। মোঃ আনোয়ার হোসেন (৪৫), পিতা-মোঃ লালচাঁন মিয়া, সাং-পুরাতন সোনাকান্দা (পশ্চিমহাটি), থানা-কেরাণীগঞ্জ মডেল, জেলা-ঢাকা, ২। মোঃ মাহমুদুল হাসান (৩১), পিতা-মোঃ হানিফ হাওলাদার, সাং- শাহজাদপুর, থানা-ভাটারা, ঢাকা, ৩। মোঃ হিরা রহমান বিজয় (২০), পিতা-মোঃ রহিম উদ্দিন, সাং-রংমেহার, পশ্চিমপাড়া, থানা-টঙ্গীবাড়ী, জেলা-মুন্সিগঞ্জ, ৪। মোঃ খোকন মাল (৩৩) পিতা-মোঃ শুক্কুর মাল, সাং-মুন্সিগ্রাম, থানা-সদরপুর, জেলা-ফরিদপুর, ৫। মোঃ জুয়েল (২৭), পিতা-মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, সাং-আমখোলা, থানা-গলাচিপা, জেলা-পটুয়াখালী, ৬। মোঃ সাগর (২৬), পিতা-মোঃ চাঁন মিয়া, সাং-পাথরঘাটা থানা-সিরাজদীখান, জেলা-মুন্সিগঞ্জ ও ৭। মোঃ ফয়সাল আহম্মেদ রাসেল (২৫), পিতা-মৃত সোলায়মান আহথানা-ভাটারা, ঢাকা বলে জানা যায়। এ সময় তাদের নিকট থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ০১টি প্রাইভেটকার, ০১টি পিকআপ, ০৩টি ছোড়া, ০১টি ডেগার, ০১টি লোহার রড, ০১টি প্লাস্টিকের পাইপ, ০১টি কাঠের লাঠি, ০২টি রশি ও ০২টি গামছা জব্দ করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। তারা বেশ কিছুদিন যাবৎ ঢাকার কেরাণীগঞ্জসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ডাকাতি ও মাদক ব্যবসা করে আসছিল। এছাড়া তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন সময়ে যানবাহন থামিয়ে দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ডাকাতি করে সেখান থেকে দ্রুত পালিয়ে যেত বলে জানা যায়।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে একটি ডাকাতি প্রস্তুতির মামলা দায়ের করে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

অভিযান-২:

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত দীর্ঘ ১০ বছর যাবৎ পলাতক আসামী নুর ইসলাম বাবু’কে যশোর জেলার কোতোয়ালী এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২:০০টায় র‌্যাব-১০ এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যশোর জেলার কোতোয়ালী থানাধীন বেজপাড়া এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে জিআর সাজা-২৯৬/১৪, ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানার মামলা নং-২৫(০৯)১৪, ধারা-১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ১৯(১) টেবিলের ৩(খ); মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সাজা ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী নুর ইসলাম বাবু (৫৬) পিতা-মোঃ মুনসুর আলি শেখ, সাং-কাউরিয়া রেইলগেট ঋষিপাড়া, থানা-ঝিকরগাছা, জেলা-যশোর’কে গ্রেফতার করে।

আসামি একজন আন্তঃজেলা মাদক কারবারি। সে দেশের সীমান্তবর্তী জেলা যশোর এর বিভিন্ন বর্ডার এলাকা থেকে চোরাই পথে মাদকদ্রব্য এনে যশোর, ফরিদপুর সহ আশপাশের বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় বিক্রয় করত। তার নামে যশোর ও ফরিদপুর জেলার বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা বিদ্যমান আছে। সে বিভিন্ন সময় ছদ্মনাম ব্যবহার করলেও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে মাদকসহ হাতেনাতে ধরা পড়ে।

আসামি এর আগে ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানার মামলা নং-২৫, তারিখ-১৯/০৯/২০১৪ইং, ধারা- ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন এর ১৯(১) টেবিল ৩(খ), মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি উক্ত মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি বলে স্বীকার করেছে। সে জামিনে মুক্ত হয়ে দীর্ঘ ১০ (দশ) বছর ধরে বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে ছিল।

গ্রেফতারকৃত আসামিকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

অভিযান-৩:
দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি কুখ্যাত ডাকাত মোঃ রুবেল ওরফে রুস্তম’কে রাজধানীর কদমতলী এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ৭:৪৫টায় র‌্যাব-১০ এর একটি চৌকস দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানী ঢাকার কদমতলী এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে আসামী কুখ্যাত ডাকাত মোঃ রুবেল ওরফে রুস্তম’ (৩৮) পিতা-আশরাফ আলী শিকদার, সাং-রঘুনাথপুর, থানা-বাকেরগঞ্জ, জেলা-বরিশাল’কে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে গুলাশান থানার মামলা নং-৪৩(১১)১৩ জিআর ৪০৯/১৩, ধারা-দ্রুত বিচার আইন ৪, ২। খিলগাঁও থানার মামলা নং-১৯(১২)১৫, দায়রা মামলা নং-১৮২৮৪/২০১৭, ৩। শাহবাগ থানার মামলা নং-৪(৯)২২ জিআর ৩৮০/২২, ধারা-৩৯৫/৩৯৭/৪১২ পেনাল কোড, ৪। খিলগাঁও থানার মামলা নং-৩৩(১২)১৫, ধারা-১৭০ দঃবিঃ, ৫। মোহাম্মদপুর থানার মামলা নং -৭২(৭)২১, বিআর ৯৩৫/২১, ধারা-১৭০/১৭১/৩৯৯/৪০২ দঃবিঃ; সহ কয়েকটি মামলা চলমান। সে উল্লেখিত ১ নং মামলায় ০২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত সাজা ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে, সে উল্লেখিত মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি বলে স্বীকার করেছে। সে মামলার পর বিভিন্ন সময় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলেও পরবর্তীতে আদালত থেকে জামিনে বেরিয়ে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপন করে ছিল। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা যায়।

গ্রেফতারকৃত আসামিকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

অভিযান-৪:

র‌্যাব এর পৃথক অভিযানে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ও কদমতলী এলাকা হতে ০৩ জন ছিনতাইকারী গ্রেফতার।

গত ০৩ ফেব্রুয়ারি র‌্যাব -১০ এর একটি চৌকস দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানী ঢাকার যাত্রাবাড়ী ও কদমতলী এলাকায় দুইটি পৃথক অভিযান চালিয়ে ০৩ জন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের নাম ১। মোঃ অপু (১৯), পিতা-মোঃ সবুজ মিয়া, সাং-আগরপুর, থানা-কুলিয়ারচর, জেলা-কিশোরগঞ্জ, ২। মোঃ দানেশ (২৮), পিতা-ইউনুস, সাং-চিকনদি, থানা-পালং, জেলা-শরিয়তপুর ও ৩। রিয়াজ (৩৩), পিতা-মৃত হোসেন ব্যাপারী, সাং-রহমানের হাট, থানা-মেহেন্দীগঞ্জ, জেলা-বরিশাল বলে জানা যায়। এ সময় তাদের নিকট থেকে ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত ০৩টি চাকু উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা বেশ কিছুদিন যাবৎ যাত্রাবাড়ী ও কদমতলীসহ রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় পথচারীদের ধারালো চাকুর ভয় দেখিয়ে টাকা-পয়সা ও মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন মূল্যবান সম্পদ ছিনতাই করে আসছিল।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে পৃথক ছিনতাই মামলা দায়ের করে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিষয়:
পরবর্তী খবর

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

চাঁপাইনবাবগঞ্জে দিনভর নানান কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। রবিবার সকালে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য শুরু হয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান। পরে নেতাকর্মীরা শহরের বঙ্গবন্ধু মঞ্চে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।

বিকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারি কলেজে শহীদ মিনার চত্বরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য মুঃ জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন– জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের নারী সংসদ সদস্য জারা জাবীন মাহবুবসহ অনান্যরা।

পরে নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণে শহরে বিশাল শোভাযাত্রা বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক ঘুরে আবারও অনুষ্ঠান স্থলে এসে শেষ হয়। শেষে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের এ আয়োজনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা ছাড়াও জেলার অনান্য উপজেলা থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এসে যোগ দেয়। এতে শহর জুড়েই যেন ছিলো উৎসব।

পরবর্তী খবর

‘সবার জন্য শিল্পচর্চা’ স্লোগানে রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্রের যাত্রা শুরু

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের ফিল্টিপাড়ায় কোল ক্ষুদ্র জাতিসত্তার পরিবারের শিক্ষার্থীদের সম্পূর্ণ বিনাবেতনে শিল্পচর্চা চালু করলো রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্র। শনিবার বিকেলে রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্রের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

ঝিলিম ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুল হাসানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা ফারুকুর রহমান, প্রথম আলো স্টাফ রিপোর্টার আনোয়ার হোসেন দিলু, জেলা স্কাউটসের সহকারী কমিশনার আশরাফুল আম্বিয়া, সম্পাদক গোলাম রশীদ, জজ কোর্টের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ভব সুন্দর পাল, কোলদের নারী নেত্রী কল্পনা মুরমু, কবি ইহান অরভিন, আনিফ রুবেদ, ইউপি সদস্য শরিয়ত আলী, সুশান্ত সাহা, ইউপি সচিব মৃণাল কান্তি পাল, চারুশিল্পী সমর সাহা, শিক্ষক ও বাদ্যশিল্পী রাজকুমার দাস, সমাজসেবক স্বপন কুমার ঘোষ প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন রঙের ভাষা আর্ট এন্ড ডিজাইন স্কুলের পরিচালক জগন্নাথ সাহা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন স্কুল শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম।

বক্তারা বলেন, পিছিয়ে পড়া ক্ষুদ্রজাতিসত্তার শিশুদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্র কাজ করবে। সামর্থ্য অনুযায়ী এ শিল্প চর্চা কেন্দ্রের পাশে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন বক্তারা।

এ কেন্দ্রের পরিচালক জগন্নাথ সাহা বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ের ১৫ জন ও মাধ্যমিক পর্যাযের ১৫ জন শিক্ষার্থীকে নিয়ে যাত্রা শুরু করবে রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্র। এখানে চিত্রাঙ্কনসহ কুটির শিল্প বিষয়ক শিক্ষা দেওয়া হবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত