খেলা, দেশ

খেলা, দেশ

সাতক্ষীরা খেলাধুলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ জনপদ

সাতক্ষীরা জেলা শিক্ষা, সংস্কৃতি ও খেলাধুলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি জনপদ। এ জেলায় জন্ম হয়েছে বহু জ্ঞানী-গুণী ও মনিষীর। তৎকালীন উপমহাদেশের রাজধানী কোলকাতার নিকটতম জনপদ হিসেবে এসব ক্ষেত্রে সমৃদ্ধি অনেক আগে থেকেই। বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনের সকল ডিসিপ্লেনেই এ জেলার খেলোয়াড় ও সংগঠকদের আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও রয়েছে দীপ্ত পদচারণা। যা ঐতিহ্যের স্বাক্ষর বহন করে আসছে। আমাদের প্রাণপ্রিয় জন্মভূমি, মাতৃভূমি সাতক্ষীরা জেলার যে সকল ক্রীড়াবিদ ও সংগঠক বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব তথা বিভিন্ন খেলায় অংশগ্রহণ করেছেন বা করছেন তাঁদের নিয়ে এ এসোসিয়েশন গঠন (২০১৬ খ্রি.) করা হয়েছে। জেলার আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ ও সংগঠকদের মধ্যে বন্ধুত্ব-ভ্রাতৃত্ব, সহযোগিতা-সহমর্মিতা, তরুণ-নবীন সহযোগিতা করা সর্বোপরি ঐক্যবদ্ধভাবে খেলাধুলাকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য কাজ করার ক্ষেত্র সৃষ্টি করা আমাদের লক্ষ্য হতে পারে। সাতক্ষীরায় আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ ও সংগঠক এ্যাসোসিয়েশনের অভিষেক সভা ও ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ এসব মন্তব্য করেন।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতে সাতক্ষীরা শহরের লেক ভিউ কনভেনশন সেন্টারে আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ ও সংগঠক এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাবেক ফিফা রেফারি জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত সংগঠক তৈয়ব হাসান শামসুজ্জামান বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সদর-০২ আসনের সংসদ সদস্য জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আশরাফুজ্জামান আশু।

প্রধান অতিথি এমপি আশু তার বক্তব্যে বলেন, সাতক্ষীরা থেকে বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রাক্তন ও বর্তমান মিলে বিভিন্ন খেলাধুলায় মোট ৯০ জন কৃতি খেলোয়াড় প্রতিনিধিত্ব করছে বা করেছেন। তার মধ্যে ফিফা রেফারি হিসাবে ৩ জন, অ্যাটলেটিকস ১ জন, বাংলাদেশ ক্রিকেটে প্রাক্তন ও বর্তমান ১০ জন, ফুটবলে মহিলা ও পুরুষ ২৫ জন, সেপাক টাকরো ১২ জন, খো খো ১২ জন, ভলিবল ৭ জন, শুটিং ২ জন, কেরাম ২ জন, তাইকোয়ান্দ ১ জন, কুস্তি ১ জন, বক্সিন ১ জন, ফ্রডবল ১ জন, অ্যাটলেটিক্সের দ্রুততম মানবী ১ জন, হ্যান্ডবল ১ জন, টেবিল টেনিস ২ জন, কাবাডি ৪ জন। এর মধ্যে দেশ ছাড়াও বিদেশে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করছেন সাবেক ফিফা রেফারি তৈয়ব হাসান শামসুজ্জামান বাবু বা তৈয়ব বাবু, বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার শেখ রবিউল ইসলাম শিবলু, ড্যাসিং হিরো সৌম্য সরকার, দ্যা ফিজ খ্যাত মোস্তাফিজুর রহমান, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী,আশিকুর রহমান, জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন, অনূর্ধ্ব ১৯ জাতীয় মহিলা দলের অধিনায়ক আফিদা খন্দকার, জাতীয় মহিলা খো কো দলের অধিনায়ক সারাবান তহুরা, জাতীয় পুরুষ খো কো দলের অধিনায়ক ও কোচ আব্দুর রহমান রানা প্রমুখ।

বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. নজরুল ইসলাম, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য লায়লা পারভীন সেঁজুতি, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত এ্যাথলেট ফরিদ খান চৌধুরী, জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক ইমাদুল হক খান, সাবেক টেস্ট ক্রিকেটার শেখ রবিউল ইসলাম শিবলু।

২০১৬ খ্রি.-এ গঠিত আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ-সংগঠক এসোসিয়েশনটিতে ইতোমধ্যে ৪ জন জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তিত্ব এবং প্রায় ৯০ জন আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ-সংগঠক’কে এসোসিয়েশনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এসোসিয়েশন গঠনের মাধ্যমে আগামীতে জেলার সকল আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ ও সংগঠকদের সহৃদয় ও সক্রিয় অংশগ্রহণে সুন্দর ও গঠনমূলক লক্ষ্য- উদ্দেশ্য নিয়ে অনেক দূর এগিয়ে যাবে এটাই আমাদের প্রত্যাশা বলে মনে করেন সংগঠনটির কর্মকর্তাবৃন্দ।

আন্তর্জাতিক ক্রীড়াবিদ ও সংগঠক এ্যাসোসিয়েশন সাতক্ষীরার উপদেষ্টা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে আছেন শেখ বশির আহমেদ মামুন (জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত সংগঠক), উপদেষ্টা হিসেবে আছেন, শেখ নিজাম উদ্দীন (আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিনিধিত্বকারী ক্রীড়া সংগঠক), শামীম আল মামুন (জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত ক্রীড়াবিদ), কার্যনির্বাহী কমিটি সভাপতি হয়েছেন সাবেক ফিফা রেফারী জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত সংগঠক তৈয়েব হাসান সামছুজ্জামান বাবু এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক ইমাদুল হক খান। এছাড়া কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সহ-সভাপতি জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত এ্যাথলেটিক্স ফরিদ খান চৌধুরী, জাতীয় ক্রিকেটার সৌম্য সরকার, জাতীয় খো খো অধিনায়ক ও কোচ আব্দুর রহমান রানা, সহ-সাধারণ সম্পাদক সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার শেখ রবিউল ইসলাম শিবলু, যুগ্ম সম্পাদক জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন, জাতীয় এ্যাথলেটিক্স শিরিন আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক জাতীয় ফুটবলার আলমগীর কবির রানা, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দা আতকিয়া হাসান দিশা (শুটিং), অর্থ সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান সোহাগ (সেফাট টাকরো), তথ্য যোগাযোগ ও প্রচার মো. ফরহাদুজ্জামান বাবু (ফুটবল), দপ্তর সম্পাদক ইমরান হোসেন (সেফাট টাকরো), নির্বাহী সদস্য, জাতীয় ক্রিকেটার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, সুজিত কুমার ব্যানার্জী (রেফারী ফুটবল), শেখ ইসমাইল হোসেন সজীব (ভলিবল), ফারজানা বানু শিল্পী (ক্যারাম) শেখ ইকবাল আলম (রেফারী ফুটবল),আরেফিন সিদ্দিকী (হ্যান্ডবল), সারাবান তহুরা (খো খো), সুমাইয়া ইমরোজ (তায়কোয়ান্দ), হাসিবুর রহমান (খো খো), আফরা খন্দকার প্রাপ্তি (বক্সার), জাতীয় ক্রিকেটার মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী নিপুণ, জাতীয় মহিলা ফুটবলার মসুরা পারভীন।

বিষয়:
পরবর্তী খবর

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

চাঁপাইনবাবগঞ্জে দিনভর নানান কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। রবিবার সকালে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য শুরু হয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান। পরে নেতাকর্মীরা শহরের বঙ্গবন্ধু মঞ্চে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।

বিকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারি কলেজে শহীদ মিনার চত্বরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য মুঃ জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন– জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের নারী সংসদ সদস্য জারা জাবীন মাহবুবসহ অনান্যরা।

পরে নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণে শহরে বিশাল শোভাযাত্রা বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক ঘুরে আবারও অনুষ্ঠান স্থলে এসে শেষ হয়। শেষে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের এ আয়োজনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা ছাড়াও জেলার অনান্য উপজেলা থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এসে যোগ দেয়। এতে শহর জুড়েই যেন ছিলো উৎসব।

পরবর্তী খবর

‘সবার জন্য শিল্পচর্চা’ স্লোগানে রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্রের যাত্রা শুরু

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের ফিল্টিপাড়ায় কোল ক্ষুদ্র জাতিসত্তার পরিবারের শিক্ষার্থীদের সম্পূর্ণ বিনাবেতনে শিল্পচর্চা চালু করলো রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্র। শনিবার বিকেলে রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্রের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

ঝিলিম ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুল হাসানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা ফারুকুর রহমান, প্রথম আলো স্টাফ রিপোর্টার আনোয়ার হোসেন দিলু, জেলা স্কাউটসের সহকারী কমিশনার আশরাফুল আম্বিয়া, সম্পাদক গোলাম রশীদ, জজ কোর্টের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ভব সুন্দর পাল, কোলদের নারী নেত্রী কল্পনা মুরমু, কবি ইহান অরভিন, আনিফ রুবেদ, ইউপি সদস্য শরিয়ত আলী, সুশান্ত সাহা, ইউপি সচিব মৃণাল কান্তি পাল, চারুশিল্পী সমর সাহা, শিক্ষক ও বাদ্যশিল্পী রাজকুমার দাস, সমাজসেবক স্বপন কুমার ঘোষ প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন রঙের ভাষা আর্ট এন্ড ডিজাইন স্কুলের পরিচালক জগন্নাথ সাহা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন স্কুল শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম।

বক্তারা বলেন, পিছিয়ে পড়া ক্ষুদ্রজাতিসত্তার শিশুদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্র কাজ করবে। সামর্থ্য অনুযায়ী এ শিল্প চর্চা কেন্দ্রের পাশে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন বক্তারা।

এ কেন্দ্রের পরিচালক জগন্নাথ সাহা বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ের ১৫ জন ও মাধ্যমিক পর্যাযের ১৫ জন শিক্ষার্থীকে নিয়ে যাত্রা শুরু করবে রঙের ভাষা শিল্পচর্চা কেন্দ্র। এখানে চিত্রাঙ্কনসহ কুটির শিল্প বিষয়ক শিক্ষা দেওয়া হবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত