ধর্ম, নির্বাচিত

ধর্ম, নির্বাচিত

হজ নিবন্ধনের সময় না বাড়ানোর কথা জানালেন ধর্মমন্ত্রী

হজযাত্রীদের নিবন্ধনের সময়সীমা না বাড়ানো প্রসঙ্গে ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, ১৮ জানুয়ারি হজের নিবন্ধন শেষ হয়েছে। আমরা হজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েশনের (হাব) সঙ্গে গত পরশুদিন মিটিং করেছি। তাদের আল্টিমেটাম দিয়েছি, ফারদার আমরা এটা (সময় বাড়ানো) আর করতে চাই না। বাংলাদেশ সব দিক দিয়ে যখন এগিয়ে যাচ্ছে, তখন আমরা আর পিছিয়ে থাকতে চাই না।

অতএব আমরা হজের নিবন্ধনের তারিখ পরিবর্তন করতে চাই না।

মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে হজের নিবন্ধনের সময়সীমা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

হজযাত্রীদের নিবন্ধন নিয়ে হজ এজেন্সি মালিকদের দোষারোপ করে ধর্মমন্ত্রী বলেন, ‘একদিকে সার্ভার জটিলতাসহ নানা কারণে এখনো প্রায় ৭৪ হাজার মুসুল্লি নিবন্ধন করতে পারেনি। বাংলাদেশের মানুষ সব কাজ ঢিলেঢালাভাবে করতে করতে এমন পর্যায়ে পৌঁছায় পরে আর সময় থাকে না।

এবারই প্রথম না, প্রতি বছরই বাংলাদেশের এজেন্সি মালিকরা এই কাজটি (সময় বিলম্ব) করে থাকেন। তারা সব সময় চিন্তা করেন শেষ সময়ে গিয়ে কম ভাড়ায় বাসা পাই কিনা, তারা এই পলিসি এডাপ্ট করে। যে কারণে আমরা এই পলিসি বন্ধ করার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ’

হজ এজেন্সি মালিকদের দোষলেও তিনি তার বক্তব্যের শেষে সৌদি সরকারের কাছে সময় পরিবর্তন বিষয়ে কথা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান ধর্মমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমরা সৌদি সরকারের সাথে কথা বলেছি। যদি তারা সময় পরিবর্তনের জন্য দুই-চার দিনের জন্য সুযোগ দেয়, আমরাও সময় বাড়ানোর জন্য কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। না হলে আমাদের এই পর্যন্তই শেষ। ’

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে শপথ এবং ধর্মমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর আজ মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো তিনি জামালপুর সফরে আসেন। তিনি মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় চত্ত্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

বিষয়:
পরবর্তী খবর

উদ্যোক্তাদের ‘দক্ষতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণ’ দিচ্ছে এন্টারপ্রাইজ বাংলাদেশ

এন্টারপ্রাইজ বাংলাদেশের আয়োজনে রাজধানীর টিকাটুলীতে অবস্থিত এফবিসিসিআই ইনোভেশন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার মিলনায়তনে শুরু হয়েছে দুই দিন ব্যাপী ক্ষুদ্র ও মাঝারী উদ্যোক্তাদের জন্যে দক্ষতা বৃদ্ধি এবং ঋণ প্রস্তুতি সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ।

বুধবার (১২ জুন) সকালে শুরু হওয়া এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে প্রথম ব্যাচে ২৫ জন উদ্যোক্তাকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। প্রথম দিন উদ্বোধনী পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই ইনোভেশন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিকর্ণ কুমার ঘোষ।

প্রধান অতিথি তাঁর উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের ঋণ শোধ করতে হলে তাঁদের স্বপ্নটাকে বাস্তবায়নে কাজ করতে হবে। তাঁদের স্বপ্ন ছিল একটা সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ। সেই লক্ষ্যে অসম্ভবকে সম্ভব করার সাহসীকতা নিয়ে কাজ করতে হবে। উদ্যোক্তাদের সেই সাহস আছে। তাদের সাহস, আত্মবিশ্বাস এবং প্রস্তুতি পারে দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে। তিনি বলেন, যারা উদ্যোক্তা তারা ঝুঁকি নিতে জানে। ঝুঁকি নেওয়া ছাড়া বড় পরিবর্তন সম্ভব না। তাই চাকরিজীবীদের দিয়ে যে অগ্রগতি সম্ভব না, উদ্যোক্তাদের দিয়ে তা সম্ভব। বিকর্ণ কুমার ঘোষ উদ্যোক্তাদের যেকোনো প্রয়োজনে পাশে থাকার প্রত্যয় ঘোষণা দেন।

প্রথম দিনের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করেন নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশনের মডারেটর ও ঢাকা জেলা এম্বাসাডর হোসাইন আল মামুন এবং টার্টেল ভেঞ্চারের মেহেনাজ জামান।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ক্ষুদ্র ও মাঝারী উদ্যোক্তাদের জন্যে দক্ষতা বৃদ্ধি এবং ঋণ প্রস্তুতি সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ কার্যক্রম তারা নিয়মিত পরিচালনা করবেন। প্রথম ব্যাচে এবার বাছাইকৃত পঁচিশজন উদ্যোক্তাকে সুযোগ দিতে পেরেছেন। ভবিষ্যতে আরও বেশি সংখ্যক উদ্যোক্তাকে এই প্রশিক্ষণের আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে। তাদের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়েছে, উদ্যোক্তাদের জন্য বিনিয়োগ এবং লোন সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলোকে সহজ করতে তারা কাজ করছেন।

এন্টারপ্রাইজ বাংলাদেশের এই আয়োজনে পার্টনার হিসেবে রয়েছে নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশন, টার্টেল ভেঞ্চার এবং দ্রুত লোন। আগামীকাল প্রথম ব্যাচের এই প্রশিক্ষণ শেষ হবে।

পরবর্তী খবর

ঈদুল আজহা ১৭ই জুন

বাংলাদেশে আগামী ১৭ই জুন (সোমবার) পবিত্র ঈদুল আজহা পালিত হবে। বাংলাদেশের আকাশে শুক্রবার (৭ জুন) সন্ধ্যায় ১৪৪৫ হিজরি সনের জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা থেকে এ তথ্য জানানো হয়। ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের সভাপতিত্বে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

হিজরি বর্ষপঞ্জি অনুসারে ১০ জিলহজ মুসলিমদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা উদযাপন করা হয়। এদিন সারা দেশে মুসলমানরা মহান আল্লাহর অনুগ্রহের আশায় ঈদের জামাত শেষে পশু কোরবানি করেন।

এদিকে, সৌদি আরবের আকাশেও স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৬ জুন) জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে। সেই হিসেবে আগামী ১৬ জুন (১০ জিলহজ) সৌদিতে পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত